USAID Administrator Mark Green Travels to Bangladesh, Burma, And Thailand

Embassy of the United States of America
Public Affairs Section
Tel: 880-2-55662000
Fax: 880-2-9881677, 9885688
E-mail: DhakaPA@state.gov
Website: https://bd.usembassy.gov

USAID Administrator Mark Green Travels to Bangladesh, Burma, And Thailand

 

DHAKA, MAY 11, 2018 — U.S. Agency for International Development (USAID) Administrator Mark Green will travel to Bangladesh, Burma, and Thailand from May 13 to May 23. USAID Senior Deputy Assistant Administrator for Asia Gloria Steele and U.S. Deputy Assistant Secretary of State for Population, Refugees, and Migration Ambassador Mark Storella will accompany Administrator Green as part of the delegation.

While in Bangladesh and Burma, Administrator Green plans to visit several sites where the U.S. Government is providing humanitarian assistance to displaced Rohingya and affected host communities. Administrator Green will also meet with Government of Bangladesh officials. In Burma, the Administrator will meet with civil-society representatives, students, and youth leaders, as well as Government of Burma officials to discuss steps needed to address the crises in Rakhine State and violence in other areas of the country.

Administrator Green will visit Bangkok from May 21 to 22 to meet with USAID Mission Directors from across Asia to discuss the implementation of the President’s Indo-Pacific Strategy.

========================

১১ই মে, শুক্রবার, ঢাকা – যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক সংস্থা (ইউএসএইড) এর আ্যডমিনিস্ট্রেটর মার্ক গ্রীন ১৩ই মে থেকে ২৩শে মে পর্যন্ত বাংলাদেশ, বার্মা, থাইল্যান্ড এবং দক্ষিণ কোরিয়া সফর করবেন। তার সাথে সফর সঙ্গী হিসাবে থাকবেন, যুক্তরাষ্ট্রের পরররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনসংখ্যা, অভিবাসন এবং শরণার্থী বিষয়ক উপসহকারী মন্ত্রী মার্ক স্টোরেলা।

বাংলাদেশ ও বার্মাতে অবস্থানকালে তিনি কুতুপালং রোহিঙ্গ্যা শরণার্থী শিবির সহ কক্সবাজারের বিভিন্ন স্থান যেখানে ইউএসএইড, রোহিঙ্গ্যা শরণার্থী ও ক্ষতিগ্রস্ত স্থানীয় জনগণের জন্য মানবিক সহায়তা দিচ্ছে সেসকল স্থানসমূহ পরিদর্শন করবেন। আ্যডমিনিস্ট্রেটর গ্রীন বাংলাদেশের সরকারি কর্মকর্তাদের সাথেও  বৈঠক করবেন। বার্মায় আ্যডমিনিস্ট্রেটর তরুণ নেতৃবৃন্দ, ছাত্র সমাজ ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের সাথে বৈঠক করবেন, এছাড়াও, রোহিঙ্গ্যা সংকটের স্বাধীন তদন্তে সহায়তার জন্য চাপ প্রয়োগ করতে তিনি বার্মা সরকারের কর্মকর্তাদের সাথেও বৈঠক করবেন।

আ্যডমিনিস্ট্রেটর গ্রীন ইউএসএইডের এশিয়া অঞ্চলের মিশন প্রধানদের সাথে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতির ইন্দো-প্রশান্ত মহাসাগরীয় কৌশল আলোচনার জন্য ২১ থেকে ২২শে মে ব্যাংকক সফর করবেন।

 

Bangla Translation (PDF)