Flag

An official website of the United States government

নন ইমিগ্র্যান্ট ভিসা

অন-অভিবাসী ভিসা আবেদনকারীদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশনা

 ভিসা সাক্ষাৎকারের দিন আবেদনকারীদের উন্নত এবং দ্রত সেবা প্রদানের জন্য, অনলাইনে ডিএস১৬০ আবেদন ফর্মটি অবশ্যই সাক্ষাৎকারের তারিখের এক বছরের মধ্যে এবং অন্তত এক সপ্তাহের পূর্বে সম্পন্ন করতে হবে, সঠিকভাবে অনলাইনে জমা দিতে হবে এবং ডিএস১৬০ নম্বরটি আপনার প্রোফাইলে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। যে সমস্ত আবেদনকারীরা সাক্ষাৎকার তারিখের এক সপ্তাহেরও কম সময়ের মধ্যে ডিএস১৬০ সম্পন্ন করে সাক্ষাৎকারে উপস্থিত হবে, তাদেরকে সাক্ষাৎকার থেকে ফিরিয়ে দেওয়া হতে পারে। এই নতুন নীতি ১লা জানুয়ারি, ২০২৪ থেকে কার্যকর হবে। উদাহরণসরূপ: সাক্ষাৎকারের তারিখ যদি ৮ই জানুয়ারী ২০২৪ হয়, তাহলে দয়া করে, পহেলা জানুয়ারী ২০২৪ এর আগে ডিএস১৬০ সম্পন্ন করুন৷ মনে রাখবেন, যদি আপনি ইতিমধ্যেই বছরের মধ্যে একটি ডিএস১৬০ সম্পন্ন করে থাকেন, তাহলে আপনাকে আর নতুন কোন ডিএস১৬০ সম্পন্ন করতে হবে না, যদি না কনস্যুলার বিভাগ থেকে ইমেইল এর মাধ্যমে আপনাকে তা করতে বলা হয়ে থাকে। সাক্ষাৎকারের এক সপ্তাহের মধ্যে ডিএস১৬০ এর যে কোন পরিবর্তন বা সংশোধনের বিষয়ে সাক্ষাৎকারের দিন কনস্যুলার স্টাফদের অবহিত করা উচিত। 

পরিচিতি

নন ইমিগ্র্যান্ট ভিসা হচ্ছে অস্থায়ীভাবে যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়া আন্তর্জাতিক ভ্রমণকারীদের জন্য। এই ভিসা আপনার পাসপোর্টে সংযুক্ত করা হয়। এটি আপনাকে যুক্তরাষ্ট্রের কোন একটি প্রবেশদ্বারে (পোর্ট অব এন্ট্রি) পৌঁছে হোমল্যান্ড সিকিউরিটি দপ্তরের কাস্টমস অ্যান্ড বর্ডার প্রটেকশন অভিবাসন কর্মকর্তার কাছে সে দেশে প্রবেশ করতে দেওয়ার অনুরোধের সুযোগ করে দেয়। এই ভিসা প্রবেশের নিশ্চয়তা দেয় না। আন্তর্জাতিক ভ্রমণকারীরা বিভিন্ন কারণে যুক্তরাষ্ট্রে আসেন। যেমন পর্যটন, ব্যবসা, চিকিৎসা এবং নির্দিষ্ট কিছু অস্থায়ী কাজ। নন ইমিগ্র্যান্ট ভিসা সম্পর্কে জানতে নন ইমিগ্র্যান্ট ভিসা বিভাগের নির্দেশিকা দেখুন।

আগাম পরিকল্পনা আপনার ভিসা আবেদন প্রক্রিয়া সহজ করতে পারে। সফরের যতটা সম্ভব আগে পারা যায় ভিসার আবেদন করুন।

  • পাসপোর্ট, যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করার সময়ের চেয়ে অন্তত ছয় মাস বেশি মেয়াদ থাকতে হবে।
  • সিজিআই ক্যাশ জমাদান স্লিপ (এমআরভি ফি প্রদান রশিদ)
  • ডিএস-১৬০ আবেদন নিশ্চিতকরণ পৃষ্ঠা
  • সাক্ষাৎকার নিশ্চিতকরণ পত্র
অনুগ্রহ করে লক্ষ্য রাখবেন, শিশুদেরও নিজেদের পাসপোর্ট থাকতে হবে।

যোগাযোগ করুন

ইমেইল:

ফোন:

ফ্যাক্স বা চিঠির মাধ্যমে কোনও অনুসন্ধান গ্রহণ করা হবে না।

বাংলাদেশি ডাকের মাধ্যমে আমাদের কাছে পাঠানো নথিপত্র পাওয়ার পরই নষ্ট করে ফেলা হবে।
আন্তর্জাতিক ডাকের মাধ্যমে আমাদের কাছে পাঠানো নথিপত্র বাংলাদেশ কাস্টমসেই ছেড়ে দেওয়া হবে। এগুলো সংগ্রহ করার জন্য আমরা কোনও ফি দিতে অক্ষম। ব্যক্তিগত পরিচয় সনাক্ত হয় নথিপত্রে থাকা এমন সব তথ্যের বিষয়ে ঝুঁকি প্রেরকের নিজের।

অন-অভিবাসী আবেদন প্রক্রিয়া: পর্ব ১

অন-অভিবাসী আবেদন প্রক্রিয়া: পর্ব ২