Flag

An official website of the United States government

যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের অর্থায়নে প্রথমবারের মতো এসএম সুলতানের শিল্পকর্ম নিয়ে তিন বছরব্যাপী যুগান্তকারী গবেষণা
দ্বারা
3 পড়ার সময়
নভেম্বর 2, 2021

 

যুক্তরাষ্ট্রের ‘অ্যাম্বাসেডরস ফান্ড ফর কালচারাল প্রিজারভেশন’ এর ২০ বছর পূর্তি এবং বাংলাদেশের সুবর্ণ জয়ন্তীর সম্মানে যুক্তরাষ্ট্র এসএম সুলতানের চিত্রকর্ম নিয়ে গবেষণা এবং পুনরুদ্ধারে কাজ করার জন্য বেঙ্গল ফাউন্ডেশনকে অর্থায়ন করছে।

ঢাকা, নভেম্বর ২, ২০২১-  আজ, যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্টদূত আর্ল মিলার এবং বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক মোহাম্মদ নুরুল হুদা ধানমন্ডির বেঙ্গল শিল্পালয়ে এসএম সুলতানের শিল্পকর্ম বিষয়ক একটি সংস্কৃতি সংরক্ষণ প্রকল্প উদ্বোধন করেছেন। তিন-বছরের এই উদ্যোগে যুক্তরাষ্ট্র সরকারের মর্যাদাপূর্ণ অ্যাম্বাসেডরস ফান্ড ফর কালচারাল প্রিজারভেশন (এএফসিপি) থেকে অর্থায়ন করা হবে। এই প্রকল্পের মাধ্যমে বাংলাদেশের অন্যতম বিখ্যাত শিল্পী সুলতানের শিল্পকর্ম নিয়ে গবেষণা, বিশ্লেষণের পাশাপাশি তার চিত্রকর্মগুলো পুনরুদ্ধার করা হবে। মূল্যবান এই শিল্পকর্মগুলো পুনরুদ্ধারের মাধ্যমে এই প্রকল্পটি বাংলাদেশের সমৃদ্ধ সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য সম্পর্কে সামষ্টিক বোঝাপড়া বাড়াতে সহায়তা করবে এবং ভবিষ্যত্ প্রজন্মের জন্য এই শিল্প ও ইতিহাস সংরক্ষণ করবে। রাষ্ট্রদূত মিলার আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকল্পের ঘোষণা দেয়ার জন্য বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক লুভা নাহিদ চৌধুরীর হাতে ঘোষণাফলক তুলে দেন এবং তিনি বেঙ্গল গ্যালারিতে চলমান সুলতানের কয়েকটি বিখ্যাত শিল্পকর্মের প্রদর্শনী ঘুরে দেখেন।

এএফসিপি বিদেশে যুক্তরাষ্ট্র সরকারের সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ সাংস্কৃতিক উদ্যোগগুলোর অন্যতম। গত ২০ বছরে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও উত্তরাধিকার সংরক্ষণ ও পুনরুদ্ধারমূলক ১২টি এএফসিপি প্রকল্পে ৮ লাখ ৭০ হাজার আমেরিকান ডলার (১ ডলার=৮৬ টাকা) এরও বেশি আর্থিক সহায়তা দিয়েছে। এই প্রকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে লালবাগ দুর্গে অবস্থিত ১৭ শতকে নির্মিত মোঘল হাম্মাম খানা সংস্কার ও পুনরুদ্ধার; বরেন্দ্র গবেষণা জাদুঘরের সংগ্রহকে সমৃদ্ধ করা ও জনসাধারণের জন্য উম্মুক্ত করা; এবং বাউল গান ও সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য, জামদানি বুনন পদ্ধতি এবং ২০০০ বছরের পুরনো ধাতব ঢালাই কৌশল এর উপর তথ্যচিত্র তৈরি ও সংরক্ষণের ব্যবস্থা গ্রহণ।

এএফসিপি ২০২২ সালের জন্য সাংস্কৃতিক সংরক্ষণ প্রকল্প প্রস্তাবনা আহ্বান করছে। এটি সকলের জন্য উম্মুক্ত। প্রকল্প প্রস্তাবনা জমা দেওয়ার শেষ সময় ১ ডিসেম্বর ২০২১। আবেদন করার প্রক্রিয়া সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের ওয়েবসাইটে দেখুন: https://bd.usembassy.gov/embassy/dhaka/grants-and-procurement-opportunities/

অ্যাম্বাসেডরস ফান্ড ফর কালচারাল প্রিজারভেশন (এএফসিপি): যুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেস ২০০১ সালে বিস্তৃত পরিসরের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য সংরক্ষণে অ্যাম্বাসেরডস ফান্ড ফর কালচারাল প্রিজারভেশন নামে একটি তহবিল গঠন করে; যার মধ্যে ঐতিহাসিক ইমারত, প্রত্নতাত্বিক স্থান, নৃতাত্ত্বিক বস্তু, চিত্রকর্ম, পান্ডুলিপি, আদিবাসীদের ভাষা এবং অন্যান্য ধরনের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য রয়েছে। এএফসিপি নামে পরিচিত এই তহবিল দুর্যোগ-পরবর্তী এবং সংঘাত-উত্তর পুনরুদ্ধার কার্যক্রম, অর্থনৈতিক সুযোগ তৈরি এবং পারস্পরিক বোঝাপড়া তৈরি করা সংক্রান্ত প্রকল্পগুলোতেও সহায়তা করে। এএফসিপি প্রকল্পগুলোতে সাধারণত স্থানীয় বিশেষজ্ঞ অংশীদারদের সম্পৃক্ত করে এবং ঐতিহ্যবাহী উপকরণ ও পদ্ধতি ব্যবহার উত্সাহিত করে। এএফসিপি কার্যক্রম আমেরিকান মূল্যবোধের প্রতিফলন ঘটায় এবং যুক্তরাষ্ট্রের বন্ধুত্বকে তুলে ধরে। ২০০১ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বের ১৩০টি দেশে ১০০০ এরও বেশি এএফসিপি সংরক্ষণ প্রকল্পে সহায়তা করেছে।