দুর্দশাগ্রস্তের সহায়তায় আমেরিকান রেড ক্রস

১৯১৮ সালের দিকে আমেরিকান রেড ক্রসের একটি পোস্টার, যেখানে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সনদ প্রচার করা হয়েছে। ডানে: আমেরিকান রেড ক্রসের প্রতিষ্ঠাতা ক্লারা বারটনের ১৮৮৪ সালের ছবি। (©এফপিজি/হালটন আর্কাইভ/গেটি ইমেজেস, ©এপি ইমেজেস)
শেয়ারআমেরিকা 
লেনোর টি অ্যাডকিনস | শেরি এল ব্রুকব্যাচার – ৮ মে, ২০২০

 

আমেরিকার গৃহযুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের সৈন্যদের সেবা করে পরিশ্রান্ত ক্লারা বারটন ১৮৬৯ সালে তাঁর চিকিৎসকের পরামর্শ শোনেন এবং বেরিয়ে পড়েন ইউরোপে এক লম্বা অবকাশে।

কিন্তু মানুষের সেবা করা থেকে দূরে থাকতে পারেননি এই সেবিকা।

সেবিকা ও আমেরিকান রেড ক্রসের প্রতিষ্ঠাতা ক্লারা বারটন শুরুতে আমেরিকার গৃহযুদ্ধের সৈন্যদের জন্য ত্রাণ দিয়েছেন। (©বেটমান/গেটি ইমেজেস)

অবকাশ যখন এক বছরে পড়েছে, তখন ১৮৭০ থেকে ১৮৭১ সালের ফ্রাঙ্কো প্রুশিয়ান যুদ্ধের সময় সুইজারল্যান্ড-ভিত্তিক আন্তর্জাতিক রেড ক্রসকে স্বেচ্ছাশ্রম দেন বারটন।

ফ্রান্সের স্ট্রাসবোর্গে এমন কয়েকটি সেলাই কারখানা প্রতিষ্ঠায় তিনি বাডেনের গ্র্যান্ড ডাচেস লুইকে সহায়তা করেন, যেসব কারখানা স্থানীয় অধিবাসীদের কাপড় তৈরির জন্য মেয়েদের নিযুক্ত করে। তিনি বাস্তুচ্যুত লোকজনকে স্ট্রাসবোর্গ থেকে ফ্রান্সের হাগেনোতে স্থানান্তরে সহায়তা করেন। এবং ত্রাণ কর্মকাণ্ড পরিচালনার জন্য তিনি প্যারিসে যান – যেখানে কাজের মধ্যে ছিল বেসামরিক লোকজনকে খাদ্য, কাপড় ও অর্থ দেওয়া।

আরেমিকান রেড ক্রস বিষয়ক ইতিহাসবিদ ও অভিলেখাগার-বিশারদ সুসান ওয়াটসন বলেন, “অবকাশ হিসেবে যা শুরু হয়েছিল, তা শেষে কাজে পরিণত হয়।“ তবে এই সফর বারটনকে ১৮৮১ সালের ২১ মে আমেরিকান রেড ক্রস প্রতিষ্ঠায় অনুপ্রাণিত করে।

আমেরিকান রেড ক্রস দুর্যোগের শিকার লোকজনকে আশ্রয়, খাদ্য ও আবেগগত সহায়তা দেওয়ার কাজ করে যাচ্ছে। এটি প্রাণরক্ষাকারী দক্ষতা শেখায়, আন্তর্জাতিক মানবিক সহায়তা দেয় এবং সামরিক বাহিনীর সদস্য ও তাদের পরিবারকে সহায়তা দেয়।

রক্ত সংগ্রহ অভিযানের মাধ্যমে এই সংগঠন দেশের রক্ত সরবরাহের প্রায় ৪০ শতাংশ সরবরাহ করে থাকে – যার পুরোটাই স্বেচ্ছাসেবী দাতাদের কাছ থেকে সংগ্রহ করা। ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, রেড ক্রস প্রতি আট মিনিটে একটি করে জরুরি পরিস্থিতিতে সাড়া দেয়।

প্রথম দিককার লক্ষ্য

শুরুর দিকে আমেরিকান রেড ক্রস মূলত দেশের ভেতরের দুর্যোগের ত্রাণকাজে মনোনিবেশ করেছিল। তারা দাবানল, বন্যা ও ঘূর্ণিঝড়ে সর্বস্বান্ত মানুষজনের দিকে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিতো। দুর্যোগকবলিতদের জন্য সংগঠনটি অর্থ সংগ্রহ করত এবং ত্রাণ সরবরাহ দিতো।

(স্টেট ডিপার্টমেন্ট/এস জেমিনি উইলকিনসন)

১৮৮৯ সালে পেনসিলভানিয়ার জনসটাউন বন্যার পর রেড ক্রস অস্থায়ী আবাসন নির্মাণ করে দেয় এবং এটির ফিলাডেলফিয়া শাখা যোগান দেয় চিকিৎসক ও নার্সের। জর্জিয়ার সাভানায় ১৮৯৩ সালে সি আইল্যান্ডস হারিকেনের পর বারটন দুস্থদের মাঝে দান করা পোশাক বিতরণ এবং দুস্থরা যাতে পুনরায় বিক্রি করতে পারে এমন পোশাক সারাইয়ের কাজে সহায়তা করেন।

১৮৯২ সালে বারটনের বয়স যখন ৭০ বছর, তখন তিনি সংগঠনটিকে বৈশ্বিক রূপ দেন, রেড ক্রসের প্রথম আন্তর্জাতিক মিশন হিসেবে রাশিয়ার দুর্ভিক্ষের শিকার ব্যক্তিদের সহায়তা করতে অন্যান্য সেবাদানকারী সংগঠনের সঙ্গে অংশিদারিত্ব তৈরি করেন তিনি।

রাশিয়ার কৃষকেরা অত্যাবশ্যকীয় পুষ্টি গ্রহণ করছে (স্বত্ত্ব: লাইব্রেরি অফ কংগ্রেস/করবিস/ভিসিজি/গেটি ইমেজেস)

ওয়াটসন জানান, সেখানে সংগঠনটির ত্রাণ কর্মকাণ্ড ৭,০০০০০ লোককে সহায়তা দিয়েছে।

প্রেসিডেন্ট হিসেবে ২৩ বছর দায়িত্ব পালনের পর ১৯০৪ সালে বারটন অবসর নেন। আট বছর পর ১৯১২ সালে তিনি মুত্যুবরণ করেন, তবে তাঁর উত্তরাধিকার এখনও বহমান।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় আমেরিকান রেড ক্রস আহত সৈন্যদের জন্য দেশজুড়ে রক্তদান কেন্দ্রগুলোয় রক্ত সংগ্রহ করতে শুরু করে – সংগৃহিত রক্ত শুকনো প্লাজমায় রূপান্তরিত করে বিদেশে ফিল্ড হাসপাতালগুলোয় পাঠানো হয়। সংগঠনটি এ কর্মকাণ্ড অব্যাহত রেখে যুদ্ধশেষে দেশজুড়ে প্রথম বেসামরিক রক্তদান কর্মসূচি চালু করে।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় একটি অস্থায়ী টারমাকে পারসোনেল ক্যারিয়ারের কাছে দান করা রক্তের ড্রাম জড়ো করছে যুক্তরাষ্ট্রের সৈন্যরা। (স্বত্ত্ব: বেটমান/গেটি ইমেজেস)
রেড ক্রস এখন

সংগঠনটি এখনও বিবর্তিত হচ্ছে। আমেরিকান রেড ক্রসের মুখপাত্র জেনেলি এলি জানান, রেসটোরিং ফ্যামিলি লিংক নামে একটি সাম্প্রতিক কর্মসূচি আন্তর্জাতিক যুদ্ধ, সংঘাত ও দুর্যোগের কারণে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়া ১০ হাজারের বেশি পরিবারকে পুনঃএকত্রীকরণ করেছে।

কোভিড-১৯ এর বিস্তার যখন অব্যাহত আছে, ইতালির ভিসেনজায় অবস্থিত রেড ক্রস কার্যালয় সেখানে অবস্থানরত যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক সদস্য ও তাঁদের পরিবারকে সহায়তা দিচ্ছে।

ইতালির মধ্যাঞ্চলে বাসা থেকে বের হতে পারেন না এমন বয়স্ক ব্যক্তিদের মাঝে বিতরণের জন্য জিনিসপত্র কিনছেন রেড ক্রসের স্বেচ্ছাসেবকরা। (স্বত্ত্ব: জেনিফার লোরেনজিনি/লা প্রেসে/এপি ইমেজেস)

যুক্তরাষ্ট্রে আমেরিকান রেড ক্রস রক্ত সংগ্রহের দিকে মনোনিবেশ করছে। এলি বলেন, “আমরা এগিয়ে এসে রক্ত দান করতে আমেরিকার জনগণের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি এবং এ ক্ষেত্রে মানুষের সাড়া অকল্পনীয়। রক্তদান একটি অত্যাবশ্যকীয় কর্মকাণ্ড এবং এটি হলো যাদের রক্ত প্রয়োজন তাদের জন্য দেশজুড়ে মানুষের পাশে মানুষের দাঁড়ানো।“